নৃত্যপরিচালক ক্যাটাগরিতে নেই পুরস্কার, ক্ষোভ জানালেন নৃত্যপরিচালক সমিতি

নৃত্যপরিচালক ক্যাটাগরিতে নেই পুরস্কার, ক্ষোভ জানালেন নৃত্যপরিচালক সমিতি

অনলাইন ডেস্ক :

৩১ অক্টোবর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০২২ আসরে ২৮টি শাখায় ২৭ ক্যাটাগরির পুরস্কারের তালিকা ঘোষণা করেছে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। এতে টানা দ্বিতীয়বারের মতো নৃত্য শাখায় কাউকে বিবেচনা করা হয়নি। অথচ পুরস্কারের জন্য ২৮টি ক্যাটাগরির জন্য সিনেমা জমা দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছিল। তাতে নৃত্যপরিচালক ক্যাটাগরিও ছিল। অভিযোগ উঠেছে নৃত্যের প্রতি জুরিবোর্ডে খামখেয়ালীপূর্ণ আচরণের।

এ বিষয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ী নৃত্যপরিচালক এবং সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক খোকন।

তিনি বলেন, এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো নৃত্য বিভাগকে জাতীয় পুরস্কার থেকে বঞ্চিত করা হল। রীতিমত এটা বিমাতাসুলভ আচরণ। অথচ বাণিজ্যিক সিনেমার প্রাণ হলো গান আর নাচ। আপনি গান বাছাই করতে পারলেন কিন্তু নৃত্য কোরিওগ্রাফিকে অস্বীকার করলেন কোন বিবেচনায়?

নৃত্য বিভাগে একজন জুরি থাকা জরুরি উল্লেখ করে খোকন বলেন- কয়েক বছর ধরেই আমরা দেখছি নৃত্য ক্যাটাগরিকে উপেক্ষা করা হচ্ছে, তাই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে নৃত্য পরিচালকদের প্রতিনিধি রাখার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে, সমিতির সহসাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন জুরিবোর্ড গঠন প্রক্রিয়া নিয়েই আমার প্রশ্ন। তারা কি জাতীয় পুরস্কার ক্যাটাগরি থেকে কোরিওগ্রাফিকে বিদায় দিলো নাকি তারা বোঝেনই না। যদি তাই না হয় তবে কেনো গুরুত্বপূর্ণ এই জায়গাটিতে প্রতিনিধিত্ব করার মতো কাইকে নির্বাচন করেনি। এটা শিল্পের প্রতি সরাসরি অপমানজনক। একই সঙ্গে শিল্পের অগ্রগতির জন্য সাংঘর্ষিক দৃষ্টিভঙ্গি।

অপরিদিকে, সময়ের তুমুল জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফার হাবিবুর রহমান ক্ষোভ প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট করেন। তিনি লিখেন- শুনতে পারলাম এবারও নাকি কোনো গানে নৃত্য পরিচালক এর পুরস্কারটি বিবেচনায় আসেনি, আমার জানামতে এই বারের পুরস্কারের জন্য সব ধরনের গান জমা পড়েছিলো যেখানে নাচের গান দুঃখের গান এবং রোমান্টিক গানসহ সব ধরনের গানই ছিলো। তারপরেও কেনো বিবেচনায় আসলো না সেটা আমার বুঝে আসেনা? আসলে কি ধরনের গান হলে পুরস্কারের জন্য আমারা আশা রাখতে পারি খুব জানতে ইচ্ছে করে?? এবারের পুরস্কারের জন্য আমার করা ৬টি কমার্শিয়াল ছবি জমা পড়েছিল তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ১ গলুই, ২ দিন দ্যা ডে, ৩ যাও পাখি বলো তারে, ৪ শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ ২, ৫ বীরত্ব, ৬ মুখোশ। এই ছবিগুলোর মধ্যে আশা করি সব ধরনের গানই ছিলো তার পরেও কেনো বিবেচনায় আসলো না সেটা বুঝতে পারলাম না??

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *